ফ্রিলেন্স ইমেল মার্কেটারদের জন্য ক্লায়েন্ট কারা? ইমেল মার্কেটিং জানলে কি কি কাজ করে অনলাইনে অর্থ উপার্জন করা সম্ভব জেনে নিন - ইমেল মার্কেটিং টিপস ২০২০

ক্যাটাগরী : ইমেল মার্কেটিং | সাব ক্যাটাগরী : ফ্রিলেন্স ইমেল মার্কেটিং
তারিখ: শনিবার, ১১ জানুয়ারী ২০২০


ফ্রিলেন্স ইমেল মার্কেটারদের জন্য ক্লায়েন্ট কারা? ইমেল মার্কেটিং জানলে কি কি কাজ করে অনলাইনে অর্থ উপার্জন করা সম্ভব জেনে নিন - ইমেল মার্কেটিং টিপস ২০২০

ইমেল মার্কেটিং করে অনলাইনে আয় করা জনপ্রিয় একটি ফ্রিলেন্স আউটসোর্সিং মাধ্যম। যেসব পদ্ধতিতে একজন ইমেল মার্কেটার অনলাইনে আয় করতে পারেন তাই আজ আমরা আলোচনা করব। কারণ ইমেল মার্কেটিং করে কি কি কাজ করা হয় তা জানা থাকলে আপনি খুজে বের করতে পারবেন আপনার ক্লায়েন্টকে। আপনার সেবা কাদের প্রয়োজন তা জানলে সহজে ক্লয়েন্ট খুজে নেয়া সম্ভব হয়। একজন ইমেল মার্কেটারের প্রধান উদ্দেশ্য থাকে ইমেল সেন্ড করতে আগ্রহী এমন ক্লায়েন্টকে খুজে বের করা। এজন্য বড় বড় কোম্পানীকে আপনার কাজের ডেমো দেখাতে হবে। কিন্তু আপনি যদি ইমেল সেন্ড করতে আগ্রহী কোন ক্লায়েন্ট না পান সেক্ষেত্রে আপনি কি করবেন ? আপনি যে ইমেল মার্কেটার তা আপনি ইমেল করে জানাতে পারেন বড় বড় কোম্পনীকে অথবা নিজেই কোন অ্যাফিলিয়েট প্রডাক্ট মার্কেটিং করে আয় করতে চেষ্টা করতে পারেন।

আসুন জেনে নেই কাদের জন্য ইমেল মার্কেটিং প্রয়োজন হতে পারে।

১। ভিজিটর - ওয়েবসাইটে ভিজিটর পেতে ইমেল মার্কেটিং প্রয়োজন হয়।

২। অ্যাফিলিয়েট - প্রডাক্ট সেল করতে অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং কাজে প্রয়োজন হয়।

৩। প্রডাক্ট সেইল করা - কোন কোম্পানী অ্যাফিলিয়েট ছাড়াও ডায়রেক্ট মার্কেটিং করতে প্রয়োজন হয় ।

৪। কাষ্টমার ফিরিয়ে আনা - পূর্বের কাষ্টমারের কাছে নতুন প্রডাক্ট সম্পর্কে জানাতে প্রয়োজন হয়।

৫। ইমেল ডাটাবেইস সেল করা - বড় বড় কোম্পনীগুলো মার্কেটিং করার জন্য ইমেল কিনতে পারে।

৬। ইমেল ডাটাবেইস ভেরিফাই করা - ইমেল সেন্ড করার পূর্বে ইমেল ভেরিফাই করে নিতে চায় সব কোম্পানী।

ওয়েবসাইটের মালিক কিংবা প্রডাক্ট সেলারের ততা অ্যাফিলিয়েট মার্কেটারের অনলাইনে পেইড ভিজিটরের প্রয়োজন হয়। পেইড ভিজিটর অনেক উপায়ই আনা যায়।ব্লগিং ও শোসিয়াল মিডিয়া থেকে ভিজিটর প্রবাইড করার কৌশল সব থেকে জনপ্রিয়।যদিও সটকার্ট ও দ্রুত ভিজিটর প্রবাইড করার জন্য অনেকেই ভিজিটর প্রভাইডার ওয়েবসাইটের আশ্রয় নেন।এই প্রক্রিয়ায় ক্লিক ফর ক্লিক মোথডে ভিজিটর প্রবাইড করা হয়।কিন্তু এই পদ্ধতিতে ভিজিটর সেন্ড করলে সাইটের রেংক বাড়লেও প্রডাক্ট সেল হওয়ার সম্ভাবনা নাই বলা যায়।তাই ইমেল মার্কেটিং পদ্ধতিতে ভিজিটর সেন্ড করা অনেক ইফেক্টিভ একটি ওয়ে।কেননা এই প্রক্রিয়ায় ইমেল ব্যবহারকারীর ইমেইলে নির্দিষ্ট প্রডাক্ট ইমেল মার্কেটিং করে ভিজিটর সেন্ড করা সম্ভব। আগেই বলেছিলাম কোন প্রকার পেইড টুলস বা সফটওয়ার ছাড়াই আমরা এই কাজটি করব।এজন্য আমরা এমন ৪/৫ হাজার ওয়েবসাইটের লিস্ট হায়ার করব যেখানে কন্ট্রাক্ট করার জন্য ইমেল করার অপশন রয়েছে। অর্থাৎ ওই ওয়েবসাইটের মালিকের সাথে যোগাযোগ করতে ইমেল সেন্ড করার অপশন রয়েছে এমন ওয়েবসাইট।

একই সাথে এই প্রক্রিয়ায় এমন কিছু ইমেল আইডি কালেক্ট করাও সম্বব। কেননা অনেকেই যোগাযোগ অপশনের সাথে তাদের ইমেল আইডি দিয়ে থাকেন।যেসব সাইটে ডাইরেক্ট যোগাযোগ করার অপশন রয়েছে সেসব সাইটে গিয়ে ডাইরেক্ট মার্কেটিং করে ভিজিটর হায়ার করা সম্ভব। যদি আপনার মার্কেটিং রিলেটেড ওয়েবসাইটে আপনি যোগাযোগ করেন। আবার সোশিয়াল মিডিয়ায় অনেক গ্রুপ থেকেও ইমেল কালেক্ট করা হয়। এই সব ওয়েবসাইটে আবার অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করা যেতে পারে।যেহেত একটিভ সাইটে আমরা এসব মার্কেটিং করছি তাই ভিজিটর পাওয়ার সম্ভাবনা অনেক যদি এট্রাকটিভ মার্কেটিং করা যায়।

ওয়েবসাইট মালিকদের ডাটাবেইস কালেক্ট করে ইমেল মার্কেটিং করা সম্ভব।আবার আপনার সংগ্রহ করা ইমেল ডাটাবেইস সেল করেও আর করা সম্বব।অনেক কোম্পানী রয়েছে যারা তাদের প্রডাক্ট মার্কেটিং করার জন্য ইমেল ডাটাবেইস হায়ার করতে আপনার কাছ থেকে কিনে নিবেন।তবে তারা যে প্রডাক্ট এর মার্কেটিং করবেন আপনার হায়ার করা ইমেল ডাটাবেইস একই নীশের হতে হবে।অনেক কোম্পানী রয়েছে তাদের ব্যবহারকারীদের মধ্যে একটিভ ইমেল ব্যবহারকারী খুজে বের করা প্রয়োজন হয়।সেক্ষেত্রে তাদের ইমেল ডাটাবেইস ভেরিফাই করা প্রয়োজন হয়।

একটিভ ইমেল ব্যবহারকারীদের মধ্যে ইমেল মার্কেটিং এর মাধ্যমে তাদের প্রডাক্ট বিক্রয় বাড়ানোর জন্য তারা ইমেল ডাটাবেইস ভেরিফাই করে থাকেন।তাছাড়া অব্যবহৃত ইমেলে ইমেল সেন্ড করলে ইমেল বাউন্স করে।সেজন্য ইমেল সারভার ব্লক হয়ে য়ায।ইমেল ডাটাবেইস ভেরিফাই করার অনেক কৌশল আছে। সফটওয়্যার দিয়ে ভেরিফাই করা যায় আবার কিছু ওয়েবটুলসও রয়েছে যা পেমেন্ট করে ব্যবহার করতে হয়। ফিলেন্স মার্কেটপ্লেসে ইমেল ভেরিফাই সংক্রান্ত অনেক কাজই দেখতে পাওয়া যায়। ফাইভারের এর মত মাইক্রো ফ্রিলেন্স সাইটে ইমেল ভেরিফাই সার্ভিস দিয়েও ইনকাম করা সম্ভব।

তথ্য সার্চ করুন
সর্বাধিক প্রিয় পোস্ট
মোবাইলে যোগাযোগ
    ওবায়দুল হক, ০১৭১৮-০২৩৭৫৯ (সকাল ১০টা - রাত ১০টা)
কমেন্ট করে মতামত জানান: